ভূগোলের 100 টি প্রশ্ন ও উত্তর




১.ভারতের দুটি অন্তর্বহিনী নদীর নাম– লুনী ও মাহি।

২. ভারতে কোন রাজ্যের জনসংখ্যা সবচেয়ে কম–সিকিম।

৩. পৃথিবীর সবচেয়ে লবনাক্ত হ্রদ কোথায় অবস্থিত– ভানুগালু ( তুরষ্ক) ।

৪. টোডা উপজাতি ভারতে কোথায় দেখা যায়– নীলগিরি পার্বত্য অঞ্চলে।

৫. রামেশ্বর মন্দির কোন রাজ্যে অবস্থিত– তামিলনাডু।

৬. খাদার কী– নবীন পলিমাটি।

৭. ভাঙ্গার কী — প্রাচীন পলিমাটি।

৮. তিস্তা নদী কোন হিমবাহ থেকে উৎপন্ন হয়– জেমু হিমবাহ।

৯. ছোটনাগপুর মালভূমি কী জাতীয় মালভুমি– ব্যবচ্ছিন্ন।

১০. কোন মেঘে বৃষ্টি হয়– নিম্বাস।

১১. পশ্চিমবঙ্গের কোন জেলায় মহাকুমা নেই– কলকাতা।

১২. কোন বায়ু কে বাণিজ্য বায়ু বলা হয়– অয়ন বায়ু।

১৩. শীতকালে সাধারণত কোন মেঘে বৃষ্টি হয়– স্ট্র্যাটোকিউমুলাস।

১৪. টাইফুন কোথায় দেখা যায়– চিন ও জাপান উপকুলে।

১৫. হ্যারিকেন কোথায় দেখা যায়– পশ্চিম ভারতে।

১৬. সিডার ঝড় কোথায় দেখা যায়– ভারত ও বাংলাদেশ।

১৭. টর্নেডো সবচেয়ে বেশি কোথায় হয়– মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে।

১৮. ভারতে বৃহত্তম উপহ্রদ কোনটি– চিল্কা।

১৯. লোকটাক হ্রদ ভারতের কোথায় অবস্থিত– মনিপুরে।

২০. সম্বর হ্রদ ভারতের কোথায় অবস্থিত– রাজস্থান।

২১. ডালও উলার হ্রদ ভারতে কোথায় অবস্থিত– জম্বু ও কাশ্মীর।

২২. কোলেরু হ্রদ কোথায় অবস্থিত– তামিলনাডু।

২৩. ভারতে বৃহত্তম মিষ্টি জলের হ্রদ কোনটি– ডাল।

২৪. পূর্ব রেল পথের সদর কোথায়– কলকাতা।

২৫. কোন শিলায় জীবাশ্ম দেখতে পাওয়া যায়– পাললিক শিলায়।

২৬. রাজস্থানের মরু অঞ্চলে চলমান বালিয়াড়িগুলিকে কী বলে– ধ্রিয়ান।

২৭. ভারতে স্থলভাগের দক্ষিনতম প্রান্তের নাম– ইন্দিরা পয়েন্ট।

২৮. ভারতে কোন রাজ্য চাকমা জনগোষ্ঠীর মানুষ বসবাস করে– এিপুরা।

২৯. কোন নদীর গতিপথে হুড্রু জলে্রপাত সৃষ্টি হয়েছে– সুবর্ণরেখা।

৩০.ভারতে একমাত্র কোন অরন্যে সিংহ দেখা যায়– রাজস্থানের গির অরণ্যে।

৩১. নাকো হ্রদ কোন রাজ্য অবস্থিত– হিমাচল প্রদেশ।

৩২. কঞ্চনজঙ্ঘা জলপ্রপাত কোন রাজ্যে আছে– সিকিম।

৩৩. কালিকটের পরিবর্তিত নাম– কোঝিকোড়।

৩৪. দক্ষিণাত্যর লাভা মালভূমি অঞ্চল কী নামে পরিচিত– ডেকানট্র্যাপ।

৩৫. গাড়ো পাহাড়ের সবোচ্চ শৃঙ্গের নাম– নকরেক।

৩৬. পূর্বঘাট পর্বতের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ — মহেন্দ্রগিরি।

৩৭. লে শহর থেকে সরাসরি চিনে যাওয়া যায় কোন গিরিপথের মাধ্যমে– সাসার।

৩৮. পশ্চিমঘাট পর্বতের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ কোনটি– কলসুবাই।

৩৯. পশ্চিম ভারতের তাপ্তী নদীর উপনদী– পূর্না।

৪০. ভারতে সবচেয়ে দীর্ঘ সমুদ্র সৈকত কোন রাজ্য আছে– মহারাষ্ট্রে।

৪১. কোন কোন তারিখে পৃথিবীর দুই গোলাধের দিন- রাত্রি সমান হয়– ২১ মার্চ ও ২৩ সেপ্টেম্বর।

৪২. ভারতের প্রাচীনতম পর্বতের নাম– আরাবল্লী।

৪৩. ভারতের বৃহত্তম লৌহ- ইস্পাত কেন্দ্র– ছত্তিশগড়ের ভিলাই।

৪৪. কোন রাজ্যের উপকূল রেখা দীর্ঘতম– গুজরাট।

৪৫. ভারতের দীর্ঘতম বাঁধের নাম– হিরাকুঁদ।

৪৬. বিশ্বের বৃহত্তম নদী দ্বীপ– মাজুলি দ্বীপ।

৪৭. পশ্চিমবঙ্গের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ– সান্দাকফু।

৪৮. পশ্চিমবঙ্গের রাঢ় অঞ্চল দিয়ে প্রবাহিত একটি নদীর নাম– ময়ুরাক্ষী।

৪৯.ভারতের সর্ববৃহৎ তৈল শোধানাগার– জামনগর।

৫০.ক্ষুদ্রতম কেন্দ্রশাষিত অঞ্চল– লাক্ষাদ্বীপ।

৫১. ভারতের সর্বোচ্চ জলপ্রপাত–যোগ।

৫২. ভারতের প্রথম সূর্যোদয় হয়– অরুণাচল প্রদেশ।

৫৩. লাক্ষ্মদ্বীপপুঞ্জের সবচেয়ে বড় দ্বীপ — মিনিকয়।

৫৪. ভারতে সবচেয়ে উঁচুতে অবস্থিত সড়ক পথ — খারদুংলা সড়ক।

৫৫. ভারতের গভীরতম বন্দর — বিশাখাপত্তনম।

৫৬. বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুতগামী ঝড়ের নাম– টর্নেডো।

৫৭.নাসিকের কুম্ভমেলা কোন নদীর তীরে হয়– গোদাবরী।

৫৮. মানচিত্রে অস্তিত্ব নেই এমন একটি দেশের নাম– বেলেডোনিয়া।

৫৯.ভারতে সবচেয়ে বড় প্রবাল দ্বীপ– লাক্ষাদ্বীপ।

৬০. ভারতের প্রথম জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র — সিদ্রাপং।

৬১. বিশ্বের জনবহুল শহর কোনটি– টৌকিও।

৬২. যে মহাকাশ যানে মানুষ প্রথম চাঁদে পর্দাপন করে তার নাম– অ্যাপেলো।

৬৩. মাদুমালাই অভয়ারণ্য কোন রাজ্যে অবস্থিত– তামিলনাডু।

৬৪. প্রশান্ত মহাসাগরের সর্ববৃহৎ দ্বীপ — মাদাগাস্কার।

৬৫. নাথিলা গিরিপথ কোন রাজ্যে অবস্থিত– সিকিম।

৬৬.অাঙ্কোরভাট মন্দির কোন দেশে অবস্থিত– কম্বোডিয়া।

৬৭. মধুবনী শিল্প কোন রাজ্যে– বিহার।

৬৮.কোন নদীতে গ্র্যান্ড ক্যানিয়ান গিরিখাত সৃষ্টি হয়েছে– কলোরাডো।

৬৯.পৃথিবীর দীর্ঘতম প্রবাল প্রাচীর কোনটি– গ্রেট ব্যারিয়ার রিফ।

৭০. বিশ্বের বৃহত্তম নিরক্ষীয় চিরহরিৎ অরণ্য কোথায়– আমাজন অববাহিকায়।

৭১. আটাকামা মরুভূমি কোথায় অবস্থিত– চিলি।

৭২. গোবি মরু ভুমিটি অবস্থিত– মঙ্গোলিয়ায়।

৭৩. পৃথিবী যে ছায়াপথে অবস্থিত তার নাম কী– আকাশগঙ্গা।

৭৪ বিশ্বের সবচেয়ে দুষিত শহর– মেস্কিকো।

৭৫. ভূমিকম্প হেতু বিশাল সামুদ্রিক ঢেউকে বলে– সুনামি।

৭৬. ভূমিকম্পের দেশ বলে– জাপানকে।

৭৭. পৃথিবীর সর্বাধিক জলবিদুৎ উৎপাদন করে– আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র।

৭৮. বিশ্বের সবচেয়ে বজ্রপাত হয়– হাওয়াই দ্বীপ

৭৯. বিশ্বের বৃহত্তম মহাদেশ– এশিয়া।

৮০. পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে বৃহৎ তৈল শোধানাগার– আবাদানে।

৮১. পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয়– মৌসিনরাম।

৮২. পৃথিবীর উষ্ণতম স্থান– জেকোবাবাদ।

৮৩. পৃথিবীর বৃহত্তম দ্বীপ– গ্রিনল্যান্ড।

৮৪. পৃথিবীর বৃহত্তম মালভূমি– তিব্বতের মালভূমি।

৮৫. পৃথিবীর উচ্চতম জলপ্রপাত হল– অ্যাঞ্জেল ফলস।

৮৬.সুন্দরবন বিখ্যাত গাছ– সুন্দরী।

৮৭. ভারতে বৃহত্তম সার কারখানা– সিন্ধ্রিতে।

৮৮.পশ্চিমবঙ্গের প্রায় মাঝ খান দিয়ে কোন রেখা টানা হয়েছে– কর্কটক্রান্তিরেখা।

৮৯. পশ্চিমবঙ্গের নবীনতম অংশ– গঙ্গার বদ্বীপ।

৯০. পশ্চিমবঙ্গের কোন নদীতে জোয়ার ভাঁটা হয়– হুগলি।

৯১. ভারতের রূঢ় বলা হয়– দুগাপুরকে।

৯২. পশ্চিমবঙ্গের ধানের ভান্ডার বলা হয়– বর্ধমানকে।

৯৩. ভারতের প্রাসাদ নগরী বলা হয়– কলকাতাকে।

৯৪. পশ্চিমবঙ্গের কোন শহর কে শৈল শহর বলে– দার্জিলিং।

৯৫. পশ্চিমবঙ্গের দুঃখের নদ বলে– দামোদর নদকে।

৯৬.তিব্বতে ব্রহ্মপুত্র নদী কী নামে পরিচিত– সাংপো।

৯৭. গরুমারা অভয়ারণ্য কোন জেলায় অবস্থিত– জলপাইগুড়ি।

৯৮. আর্ন্টাকটিকার তুষার ঝড়কে কী বলে– ব্লিজার্ড।

৯৯. রামধনুর দেশ বলে– হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জকে।

১০০.পশ্চিমবঙ্গের সর্বাধিক জনসংখ্যাযুক্ত জেলা– উত্তর চব্বিশ পরগনা।